Cinque Terre
116789078 3804537502896854 7472950866338635606 N

ইসলামের প্রথম মসজিদ

কুবা মসজিদ বা মসজিদে কুবা। ৬২২ সালে নির্মিত এটি ইসলামের প্রথম মসজিদ। এটি মদিনার হেজাজ অঞ্চলে অবস্থিত। এর অবস্থান মসজিদে নববী থেকে প্রায় চার কিলোমিটার দুরে। হিজরতের পর মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সাঃ) এই মসজিদের ভিত্তি স্থাপন করেন। মহানবীর (সাঃ) প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে হিজরতকারী মুজাহিদদের হাতে গড়ে ওঠে এই মসজিদ। মহানবী (সাঃ) এই মসজিদে সর্ব প্রথম নামাজ আদায় করেন এবং এখানে তিনি কয়েক দিন অবস্থান করেছিলেন।

পরবর্তীতে তিনি তাঁর ১০ বছরের মাদানী জীবনে প্রতি শনিবার পায়ে হেটে বা উটে চড়ে এই মসজিদে গিয়ে দু’রাকাত নামাজ আদায় করতেন। মসজিদে মহিলাদের নামাজের জন্য পৃথক ব্যবস্থা রয়েছে। পবিত্র কোরআনের সুরা আত্ তওবার ১০৮ নং আয়াতে এই মসজিদের কথা উল্লেখ আছে। নিজ আবাসস্থল থেকে ওজু করে এসে এই মসজিদে দু’রাকাত নামাজ আদায় করলে একটি ওমরাহ’র সওয়াব হয় মর্মে হাদীসে বলা আছে।

মসজিদে কুবা দুনিয়ার ফজিলাতপূর্ণ চারটি মসজিদের একটি। অন্য তিনটি হলো মাসজিদুল হারাম, মসজিদে নববী ও মাসজিদুল আকসা।

মূলতঃ কুবা একটি কূপের নাম। এই কূপকে কেন্দ্র করে কুবা মহল্লা গড়ে ওঠে। এই যোগসূত্রে মসজিদটির নামকরণ হয় মসজিদে কুবা। প্রতিষ্ঠার পর ইসলামের তৃতীয় খলিফা হজরত উসমান (রাঃ) প্রথম বার কুবা মসজিদের সংষ্কার ও সম্প্রসারণ করেন। এরপর কয়েক বার সংষ্কার ও সম্প্রসারণের পর সর্বশেষ ১৯৮৬ সালে সৌদি সরকার এর আধুনিকায়ন করেন। মদিনাবাসীর সরলতার প্রতি সম্মান স্বরূপ এই মসজিদে সাদা পাথর ব্যবহার করা হয়।

এতে চারটি মিনার ও ছয়টি গম্বুজ রয়েছে। এখানে পর্যাপ্ত যমযম পানির ব্যবস্থা রয়েছে। প্রায় ২০ হাজার মুসল্লি একত্রে নামাজ আদায় করতে পারে এই মসজিদে। কুবা মসজিদের জায়গাটি ছিল হজরত কুলসুম ইবনুল হিদম (রাঃ)-এর খেজুর শুকানোর পতিত জমি। তিনি ছিলেন আমর ইবনে আওফের গোত্রপতি। মদিনায় এসে মহানবী (সাঃ) তাঁর আতিথ্য গ্রহন করেন।

মোঃ ইয়ারুল ইসলাম
৩১/০৭/২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *